শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ০৫:২৩ পূর্বাহ্ন

লোহাগাড়ায় লুঙ্গি পরে ক্লাস নিচ্ছেন সরকারী বিদ্যালয়ের শিক্ষক!

রায়হান সিকদার, লোহাগাড়া(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ  চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার দক্ষিণ পুটিবিলা সুফি ফকির সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে লুঙ্গি পরে ক্লাস নিচ্ছেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক আকবর আহমদ। কিন্তু সরকারী ভাবে লুঙ্গি পরে স্কুলে ক্লাস নেওয়ার কোন নিয়ম নেই।

সরেজমিন পরিদর্শনে গিয়ে জানা যায়, আকবর আহমদ বিগত ১ জানুয়ারী ২০১৩ সালে দক্ষিণ পুটিবিলা সুফি ফকির সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে জাতীয়করণ হয়। বিগত ২ বছর ধরে তিনি নিয়ম না মেনে বিদ্যালয়ে লুঙ্গি পরে বিভিন্ন শ্রেনীর ক্লাস নেন। ক্লাস নেওয়ার সময় শিক্ষার্থীদের ক্লাস না নিয়ে মোবাইলে ব্যস্ত থাকেন। তার এমন কর্মকান্ডে শিক্ষার্থীদের মধ্যে অন্য রকম বিভাজন সৃষ্ঠি হয়েছে।

বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী আসিফ উদ্দিন সায়মন জানান, শিক্ষকদের আমরা সম্মান করি। আকবর আহমদ স্যার আমাদেরকে ক্লাসে লুঙ্গি পরে ক্লাস নেন। ক্লাস নেওয়ার সময় মোবাইল ফোনে ব্যস্ত থাকেন। আমরা তো ক্লাসে শিখতে এসেছি।

স্থানীয় এলাকার বাসিন্দা আবদুর রহিম জানান, আমাদের সন্তানেরা বিদ্যালয়ে পড়তে যায়। বাড়িতে এসে বিদ্যালয়ের আকবর স্যার লুঙ্গি করে ক্লাস নেওয়ার বিষয়টি তাদের কাছ থেকে আমরা জানতে পারি।

দক্ষিণ পুটিবিলা সুফি ফকির সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাস্টার ফেরদৌস আলম জানান, আকবর আহমদ বিগত ২ বছর ধরে লুঙ্গি পরে ক্লাসে শিক্ষার্থীদের পড়ান। ক্লাসে বসে শুধু মোবাইলে ব্যস্ত থাকেন। লুঙ্গি পরে ক্লাস নেওয়ার বিষয়টি তাকে অনেক বার নিষেধ করেছি। কে শুনে কার কথা। শিক্ষার্থীরাও তার লুঙ্গি পরা বিষয়টি সুন্দরভাবে দেখছেন না। বিষয়টি সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন তিনি।

লোহাগাড়া উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার ওমর ফারুক জানান, শিক্ষক আকবার আহমদের লুঙ্গি পরে ক্লাস নেওয়ার বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমাকে অবগত করলে কয়েকবার নিষেধ করেছি। লুঙ্গি পরে কোনো শিক্ষক ক্লাস নেয়ার নিয়ম নেই। আমরা তাকে শোকজ করে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিবো।

লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনএ) শরীফ উল্যাহ জানান, ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক আকবর আহমদের লুঙ্গি পরে ক্লাস নেয়ার বিষয়টি উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে অবহিত করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুক পেইজ