শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৬:১৫ পূর্বাহ্ন

প্রতিদিনেই বটতলী স্টেশনে যানজটঃনিরসনে কঠোর অবস্থানে লোহাগাড়ার ইউএনও,এসিল্যান্ড, ওসি

রায়হান সিকদার,লোহাগাড়া প্রতিনিধিঃ 

দক্ষিণ চট্টগ্রামের অনতম বাণিজ্যিক নগরী হিসেবে লোহাগাড়া সদরে বটতলী স্টেশন বেশ পরিচিত। দীর্ঘদিনের বড় সমস্যা যানজট। বটতলী স্টেশনে যানজট লেগেই থাকে। যানজট নিরসনের জন্য উপজেলা প্রশাসন, থানা প্রশাসন বিভিন্ন ধরণের পদক্ষেপ নিয়েছেন। কয়েকবার অভিযান পরিচালনা করে সতর্ক করে দিয়েছেন।৪ ফেব্রুয়ারি স্টেশনে যানজট নিরসনের জন্য মাঠে কঠোর অবস্থানে ছিলেন উপজেলা প্রশাসন, থানা প্রশাসন ও দোহাজারি হাইওয়ে থানা পুলিশ।দুপুর ২টা থেকে শুরু করে বিকেল ৫টা পর্যন্ত স্টেশনের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চলে। এ সময় মহাসড়কে অবৈধ চালিত সিএনজি, ব্যাটারি চালিত রিক্সা, নসিমন গাড়িগুলো মহাসড়কে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্ঠি না করতে কঠোরভাবে নির্দেশনা প্রদান করা হয়। যত্রতত্র ভাবে মিনিবাস দাঁড়িয়ে যাত্রী উঠানামা করা যাবেনা এ বিষয়ে নির্দেশনা প্রদান করা হয়।অভিযানে নেতৃত্ব দেন লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও), নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুুহাম্মদ ইনামুল হাছান, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারি কমিশনার(ভূমি) নাজমুন লায়েল এবং লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ রাশেদুল ইসলাম।অভিযানকালে লোহাগাড়া উপজেলা কৃষি অফিসার কাজি শফিউল আলম, উপজেলা সমাজসেবা অফিসার রিদুয়ানুল করিম, উপজেলা সহকারি বিআরডিবি কর্মকর্তা জালাল উদ্দিন, লোহাগাড়া থানার এএসআই জাহাঙ্গীর, দোহাজারি হাইওয়ে থানা পুলিশ, বটতলী শহর উন্নয়ন কমিটির নেতারা, আনসার বাহিনীর সদস্য, পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ রাশেদুল ইসলাম জানান, বটতলী স্টেশনে বড় সমস্যা যানজট। যত্রতত্র গাড়ি দাঁড়িয়ে যানজট লেগেই থাকে। থানায় যোগদান করার পর থেকেই কয়েকবার অভিযান চালিয়েছি। স্টেশনকে যানজটমুক্ত করতে জনপ্রতিনিধি,ব্যবসায়ীদের এগিয়ে আসতে হবে।কোন ভাবেই ফুটপাত দখল চাঁদা নেওয়া যাবেনা। স্টেশনে অবৈধভাবে কোন কিছু চাঁদাবাজি করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও), নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুুহাম্মদ ইনামুল হাছান জানান,উপজেলা সমন্বয় সভায় বটতলী স্টেশনের যানজট নিয়ে অনেকবার আলোচনা চলছিল। আমরা বটতলী স্টেশনকে যানজটমুক্ত করতে চাই। আমরা ইতিমধ্যে অভিযান চালিয়ে মিনি বাস,বড় বাস, সিএনজি, ব্যাটারি চালিত রিক্সা,ফুটপাত দখলে বিষয়ে উপজেলা প্রশাসন কোন প্রকার ছাড় দেওয়া হবেনা। ফুটপাত দখল করে যারা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুক পেইজ